ভাড়া নিয়ে তর্ক, চলন্ত বাস থেকে নারীকে ফেলে দিল হেলপার

গতকাল বিকেলে ভাড়া নিয়ে তর্কের জেরে এন মল্লিক পরিবহনের এসি বাস থেকে এই নারীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে সেটা রীতিমতো ভাইরাল হয়ে যায়।

গতকাল রবিবার (৭ মার্চ) বিকেলে ঢাকা জেলার অন্তর্গত কেরানীগঞ্জ উপজেলার রোহিতপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী গণমাধ্যমকে এ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মো. মোজাম্মেল হক চৌধুরী গতকাল রবিবার রাতে নিজের ফেসবুক প্রোফাইলে এ ঘটনার একটি ভিডিও শেয়ার করেন। ভিডিওর ক্যাপশনে লেখা আছে ‘ভাড়া নিয়ে তর্কের জেরে এন মল্লিক পরিবহনের এসি বাস থেকে এই নারীকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন!’

মোজাম্মেল হক বলেন, এটি মল্লিক পরিবহনের একটি বাস। এই বাসটি গুলিস্তান থেকে নবাবগঞ্জ সড়কে চলাচল করে। এ ঘটনার ভিডিওতে আশপাশের যে মার্কেটগুলো দেখা যাচ্ছে সেতা রোহিতপুর এলাকার।

এই ঘটনাটি কবে ঘটেছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, এই ঘটনাটি গতকাল রবিবার বিকালে ঘটেছে। তবে যে নারী যাত্রীকে বাস থেকে ফেলে দেওয়া হয়েছে তার পরিচয় সম্পর্কে কিছুই জানাতে পারেননি তিনি। তিনি বলেন, আমরা তার পরিচয় শনাক্ত করতে পারিনি।

এ সময় মোজাম্মেল হক আরও বলেন, আমরা ঘটনার বিষয়ে জানতে পারার পরে আজ সোমবার সকালে বিআরটিএকে বলেছি। যেহেতু গাড়ির নম্বর স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে। তাই আমরা গাড়ির নম্বরটিসহ বিআরটিএর অভিযোগ সেলে আমরা জানিয়েছি।

এদিকে ভিডিওতে দেখা যায়, এন মল্লিক পরিবহনের একটি বাস থেকে হেলপার এক নারীকে টেনে রাস্তায় ছুড়ে ফেলে দেন। এরপর বাসটি সামনে চলে যায়। ওই নারীকে ফেলে দেওয়ার পর তিনি প্রচুর কান্না করছিলেন বলে ভিডিওতে দেখা যায়। ভিডিওর এক পর্যায়ে ওই বাসের নম্বরটি স্পষ্ট দেখা যায়। গাড়ির নম্বরটি হলো- ঢাকা মেট্রো-ব-১৩-১৫২১।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*