লবণই অকাল মৃত্যুর কারণ!

লবণই অকাল মৃত্যুর কারণ!

লবণ না থাকলে কি স্বাদ বুঝা যায়! খাবারে লবণ খাওয়া ঠিক আছে। কিন্তু মাত্রাবিহীন লবণ খাওয়া কতটুকু ঠিক বা আদ্দ ঠিক কিনা অনেকেই জানে না। কেউ কেউ তো খাবারে কাঁচা লবণও ব্যবহার করেন। লবণ খাওয়া শরীরের জন্য ক্ষতিকর। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) সম্প্রতি গবেষণায় লবণ খাওয়ার আশঙ্কার পরিসংখ্যান তুলে ধরা হয়েছে।

গবেষণায় দেখা গেছে মানুষ তার প্রয়োজনের থেকে দ্বিগুণ পরিমাণ লবণ খেয়ে থাকেন। যা থেকে হৃদরোগের সম্ভাবনা থাকে। এছাড়াও অতিরিক্ত লবণ খাওয়ার ফলে অকাল মৃত্যুও হয়ে থাকে।

খাদ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, গত ৩০ বছরে আধুনিকতার জন্য মানুষের খাদ্যাভ্যাসে আমূল পরিবর্তন এসেছে। শাক-সবজি,ফলমূলের পরিবর্তে এখন খাদ্যতালিকায় থাকছে প্রক্রিয়াজাত খাদ্য ও ফাস্টফুড। এসব খাবারে সাধারণত লবণের পরিমাণ বেশি থাকে। এছাড়াও শর্করা ও ফ্যাটের পরিমাণও বিপদসীমার ওপরে থাকে।

জাঙ্ক ফুডে অতিরিক্ত লবণযুক্ত উপাদান, শর্করা ও ক্ষতিকর ফ্যাট থাকে। এসব থেকে মানুষের উচ্চ রক্তচাপ,শরীরে ফ্যাট ও হৃদরোগের সম্ভাবনা বাড়ছে। বিভিন্ন গবেষণার প্রতিবেদন বলছে, শুধুমাত্র লবণ খাওয়া থেকে প্রতিবছর অনেক মানুষ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায়। লবণের বিষাক্ত ভূমিকা থেকেই অস্বাভাবিক মৃত্যু হচ্ছে, যা আগামীতে আরও বাড়বে। তাই এখনই উচিত বাড়তি লবণ খাওয়ার অভ্যাস পরিহার করা।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*