তেলাপোকার উপদ্র’প থেকে মু’ক্তি মি’লবে চিনিতেই!

মিষ্টি খেতে ভালোবাসেন নিশ্চয়! চিনি ছাড়া মিষ্টি চিন্তাই করা ক’ঠিন। তবে অনেকের জন্যই চিনি খাওয়া নি’ষেধ। তবে জা’নেন কি এই চিনি শুধু খেতেই মিষ্টি নয়, বেশ কাজে’রও?

শুধু চিনি দিয়েই অনেক ক’ঠিন কাজ সেরে ফেলতে পারেন সহজেই। চলুন তবে জে’নে নেয়া যাক সেগুলো- শি’শুর ব্য’থা উপসম: জা’নেন কি চিনি ব্য’থা কমাতে সাহায্য করে?

ভ্যাক্সিনেশনের আগে শি’শুকে চিনির পানি খাইয়ে নিন। এতে য’ন্ত্রণা কম হবে।ক্ষ’ত সারাতে: হ’ঠাৎ কে’টে গেছে? র’ক্ত ব’ন্ধ ক’রতে ক্ষ’তের ওপর চিনি ছড়িয়ে দিন। র’ক্ত ব’ন্ধ হবে। ক্ষ’ত সারবেও তাড়াতাড়ি।

জিভের জ্বা’লা: খুব গরম চায়ে চুমুক দিয়ে জিভ পুড়ে গেছে বা হ’ঠাৎ করে জিভে কামড় পড়ে গেছে? চিনি লা’গিয়ে নিন।ঝাল দূ’র করে: খুব স্পাইসি খাবার খেলে ঝাল লে’গে মুখ, গলা জ্বা’লা করে।

এই সময় পানির বদলে খেয়ে নিন এক চামচ চিনি। স’ঙ্গে স’ঙ্গে আরাম পাবেন।বডি স্ক্রাব হিসেবে: চিনি ত্বক এক্সফোলিয়েট ক’রতে দারুণ কাজ করে। অলিভ অয়েল বা পাকা কলার স’ঙ্গে চিনি মিশিয়ে নিন।

এই মি’শ্রণ দিয়ে গোটা শ’রীরে স্ক্রাব ক’রতে পারেন।ঠোঁটের যত্নে: চিনির স’ঙ্গে অলিভ অয়েল মিশিয়ে ফাটা ঠোঁটে লা’গান। ম’রা চামড়া উঠে কোমল ঠোঁট পাবেন।

হাত যত্নে: অনেক সময় হাত থেকে অতিরি’ক্ত তেল, গ্রিজ বা ময়লা উঠতে চায় না। সাবান পানি মধ্যে কিছুটা চিনি মিশিয়ে নিন। এতে তাড়াতাড়ি উঠে যাবে। অলিভ অয়েল ও চিনি মিশিয়েও হাত পরি’ষ্কার ক’রতে পারেন।

ফুল সতেজ রাখতে: ফুলদানিতে ফুল সাজানোর সময় হালকা গরম জলে ৩ চা চামচ চিনি ও ২ টেবিল চামচ সাদা ভিনেগার মিশিয়ে রাখু’ন। এতে ফুল বেশি দিন তাজা থাকবে।

বাগানে সার হিসেবে: সার হিসেবে দারুণ ভাল কাজ করে চিনি। বড় বাগান হলে প্রতি ২৫০ বর্গফুট অন্তর আড়াই কেজি করে চিনি ফে’লে রাখু’ন। চিনি মাটির উর্বরতা বাড়াবে।

তেলাপোকার উপদ্রপ থেকে মু’ক্তি: রান্নাঘরে তেলাপোকার উপদ্রব? একটা পাত্রে সম পরিমাণ বেকিং সোডা ও চিনি মিশিয়ে রাখু’ন। চিনি খেতে তেলাপোকা আসবে, কিন্তু বেকিং সোডায় দমব’ন্ধ হয়ে মা’রা যাবে।

মিক্সার-গ্রাইন্ডার পরি’ষ্কার: মিক্সার-গ্রাইন্ডার পরি’ষ্কার করা বেশ ক’ঠিন ব্যাপার। নোংরা গ্রাইন্ডারে সিকি কাপ চিনি দিয়ে চালিয়ে দিন গ্রাইন্ডার। তারপর ভালো করে ধুয়ে মুছে নিন।

জামা কাপড়ে দাগ দূ’র করা: যদি জামা কাপড় থেকে কোনো দাগ উঠতে না চায় তাহলে গরম পানি ও চিনির ঘন পেস্ট তৈরি করে নিন। দাগের ওপর লা’গিয়ে রাখু’ন ১ ঘণ্টা। তারপর কেচে ধুয়ে ফেলুন। দাগ উঠে যাবে।

কেক ও কুকিজ ফ্রেশ রাখতে: কেক বা কুকিজ এয়ারটাইট কৌটোয় রাখলে স’ঙ্গে কয়েকটা সুগারা কিউব রাখু’ন। এতে বেশি দিন ফ্রেশ থাকবে কেক, কুকিজ।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*