যেভাবে স্বামীর কাছে নিজেকে আরো আকর্ষণীয় করে তুলবেন

বিবাহিত জীবনে অনেক নারীর অভিযোগ তার স্বামী তাকে আগের মত ভালোবাসে না! এবং তার প্রতি তার স্বামী খুব একটা যত্নশীল না। রোমান্স পছন্দ করেনা এমন মানব পাওয়া দুষ্কর। আমাদের দেশের প্রায় ৬০% দাম্পত্য জীবনে রোমান্স নেই বললেই চলে। এমন অনেক স্বামী-স্ত্রী আছেন যারা মাসের মধ্যে প্রায় ৩০ দিনই ভালো ভাবে কথা বলেন না কিন্তু কথা ছাড়া শারীরিক সম্পর্কে জড়ান। স্বামী ভাবে এটা আমার খেত আমি আমার মত করে ফসল কাটব আর স্ত্রী ভাবে আমার কিছু করার নাই এটাই নিয়ম।

না আপনাদের ভাবনা সম্পূর্ণ ভুল দাম্পত্য জীবনে ভাল ভাবে উপভোগ করতে আপনার জীবনে রোমান্স খুবই জরুরী। আর এর জন্য যা করবেন। স্বামীর নিকট নিজেকে আকর্ষণীয় করতে প্রথমে যা করবেন তা হলে নিজেকে স্বামীর নিকট সব সময় খোলা মেলা উপস্থাপন করবেন না। এর ফলে আপনার স্বামী আপনার শরীরের প্রতি কিছুটা আগ্রহ হারিয়ে পেলবে। আমাদের দেশের বেশির ভাগ বউয়েরা এই ভুলটা করে থাকে যা মোটেও উচিৎ নয়।

আপনার স্বামী কর্মস্থল থেক আসলে তাকে আদর করে জড়িয়ে ধরুন তাকে বলুন সারা দিন তোমাকে অনেক মিস করেছি। আপনার এই আবেগ তাকে অনুপ্রাণিত করবে। বিশেষ দিনে তাকে কিছু গিফট করুন যেমন: মানি ব্যাগ, শার্ট, কলম, ইতাদি। দাম্পত্য জীবন শুধু মাত্র শারীরিক সম্পর্কের মধ্যে বন্ধি করে রাখবেন না এটাকে নিজেদের মত করে উপভোগ করুন রোমান্স করুন ভালোবাসুন। আপনাদের দুরুত্ত আপনাদের দূরে সরিয়ে রাখবে। মনে রাখবেন আপনার যৌন জীবনে অশান্তি মানেই আপনার জীবন তেজপাতা।

স্বামীর কাছে আকর্ষণীয় হবার উপায়

স্বামীর চোখে আকর্ষণীয় হয়ে উঠার জন্য কি করতে হয়? অনেক বেশি সাজগোজ বা ফিটফাট হয়ে থাকা নাকি খুব ভালো আচার আচরণ? হ্যাঁ, অবশ্যই ভালো আচার আচরণ মানুষের মনে অনেক প্রভাব ফেলে কিন্তু তারপরও ছোট কিছু কাজই স্ত্রীকে স্বামীর চোখে আকর্ষনীয় করে তুলতে পারে।

স্বামীর চোখে আকর্ষণীয় ও আবেদনময়ী হয়ে উঠতে খুবই সুন্দর হবার প্রয়োজন নেই, কেবল জানতে হবে কীভাবে নিজেকে আকর্ষণীয় করে তোলা যায়। জেনে নিন ৭টি টিপস।

১) আপনি দেখতে কতটা সুন্দর, তার চেয়ে জরুরি নিজেকে আপনি কীভাবে উপস্থাপন করেন। আপনি মোটা হলে এমন কাপড় পরবেন না, যাতে আরও মোটা দেখায়। রোগা হলে নিজেকে একটু মোটা দেখা যায় সেই চেষ্টা করুন। ছেলেরা ভরাট শরীরের নারী খুব ভালোবাসে। তাই একদম রোগা হবার চাইতে নিজেকে ভরাট শরীরের অধিকারী করে তুলুন। মোটা নারীরা ওজনটা একটু ঝরিয়ে শরীরটা শেপে নিয়ে আসুন।

২) নিজের গায়ের রঙ সম্পর্কে সচেতন হোন, সেটা যেমনই হোক মেনে নিন। এবং সেই হিসাবে সাজসজ্জা করুন। যেটা আপনাকে মানায়, সেটুকুই সাজুন।

৩) নিজেকে স্বামীর কাছে মোহনীয় করার জন্য হালকা সুগন্ধি ব্যবহার করবেন। এটা সেই জিনিস, যা মুহূর্তেই আপনাকে আবেদনময়ী করে তোলে।

৪) আকর্ষণীয় পোশাক পরুন। এমন পোশাক পরবেন না যা অশ্লীল, কিন্তু আপনার সৌন্দর্য যেন প্রকাশিত হয় সেটা লক্ষ্য রাখুন।

৫) সুন্দর করে হাঁটা, হাসা ও কথা বলা অভ্যাস করুন। এই একটি জিনিসই আপনাকে সবচাইতে বেশি আবেদনময়ী করে তুলবে।

৬) নিজের শরীরকে সুন্দর রাখুন অবাঞ্ছিত লোম পরিষ্কার করে। হাত পা নিয়মিত পরিষ্কার রাখুন।

৭) সুন্দর ভাবে খান। একই সাথে কিছু ছোট্ট আচরণ অভ্যাস করুন যেগুলো খুবই “কিউট”।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*