জানেন কি, হাতে ‘M’ চিহ্ন থাকলে আপনার সঙ্গে এসব ঘটতে পারে!

অনেকে বলেন মুখ নাকি মনের আয়না, আবার হস্তরেখাবিদদের কাছে কিন্তু হাতের রেখাই হল ভূত-বর্তমান-ভবিষ্যতের আয়না৷ আপনাদের মধ্যে অনেকেই হাতের রেখা নিয়ে খুবই আগ্রহী৷ কেউ বিশ্বাস করেন, কেউবা করেন না৷তবে সেসব ত’র্ক-বিত’র্ক দূরে রেখে চলুন চোখ রাখা যাক কিছু ইন্টারে’স্টিং বিষয়ে৷ আপনারা হা’র্ট লাইন, লাই’ফ লাইন নিয়ে অনেক কিছু শুনেছেন৷ কিন্তু জানেন কি হাতে একটি M চিহ্নও রয়েছে অনেকের৷

পুরুষের হাতে M থাকলে তারা খুবই প্রতিশ্রুতিমান- অনু’ভূতিপ্র’বণ হতে পারেন৷ যে কোনও উদ্যো’গে সাফল্য নাকি আসেই৷ তা চাকরি হোক বা প্রেম৷ এধরনের ব্যক্তিরা খুব একটা প্রতা’র’ণা প্রব’ণ হন না৷ প্রেমিক-প্রেমিকা দু’জনের হাতেই M থাকলে তাদের তাদের রাজযোটক মনে করা হয়৷তবে ছেলে-মেয়ে ভে’দাভে’দ না করে বলা যায়, যাদের হাতে এই M থাকে তারা-১. খুব আবেগপ্র’বণ হন ২. এঁরা সাধারণত ঈশ্বরে বিশ্বাস করেন ৩. খুব কাছের মানুষের কাছ থেকে ক’ষ্ট পেতে পারেন৷

৪. চাকরি না হলে, কোনো ব্যবসার দিকে মনোনিবেশ করুন, ভালো ফল পাবেন আপনি ।৫. এঁরা খুব মিশুকে হন ৬. চাকরিতে ভাগ্য না খুললে ব্যবসার দিকে চেষ্টা করে দেখতে পারেন৷৭. সহজেই সকলকে বিশ্বাস করে ফেলেন আরও পড়ুন…দ্রুতগতিতে রান তোলার ক্ষেত্রে বাংলাদেশের দুর্বলতা বরাবরই। বিশেষ করে ক্রিকেটের সাদা বলের ফরম্যাটে ব্যাটিংয়ে শুরুর বাংলাদেশ আর শেষে বাংলাদেশের চিত্র মেলানোটা অনেক সময় কঠিন হয়ে পড়েও। যেকারণে ক্রিকেটে দ্রুততম রানের রেকর্ডগুলোতে বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানদের নাম খুঁজতে বেশ বেগ পেতে হয় টাইগার ভক্তদের।

তেমনি ওয়ানডে ক্রিকেটে ওক ওভারে তথা ৬ বলে সর্বোচ্চ রান নেওয়ার তালিকাতেও বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানদের নামটা খুঁজতে গেলে যে একজনের নাম রয়েছে সেটাও পাশ কেটে যেতে পারেন অনেকেই। কেননা সেই রেকর্ডে নেই কোন বাংলাদেশী ব্যাটসম্যানের নাম। আর সেই রেকর্ড খুঁজতে হলে ফিরে যেতে হবে ২০০৭ সালে।

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*