শেখ হাসিনা স্টেডিয়ামের নকশার দরপত্রে ‘বিপুল সাড়া’

ঐতিহ্য আর শিল্পের সেতুবন্ধে রাজধানীর পূর্বাচলে তৈরি হবে দেশের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়াম। অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধা সমৃদ্ধ স্টেডিয়ামটির নাম হবে ‘দ্য বোট শেখ হাসিনা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়াম’। সম্প্রতি স্টেডিয়ামের নকশার জন্য দরপত্র আহ্বান করেছিল বিসিবি।

আশার বাণী হলো, স্টেডিয়ামটির স্থাপত্য নকশার দরপত্রে বিপুল সাড়া পেয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকেলে সংবাদমাধ্যমে এমনটাই জানান স্টেডিয়ামের প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক ও বিসিবি পরিচালক মাহবুব আনাম।

সবকিছু ঠিক থাকলে ২০২১ সালের মধ্যে দেশের সবচেয়ে বড় স্টেডিয়ামটির নির্মাণকাজ শেষ হওয়ার কথা। যার সম্পূর্ণ খরচ বহন করবে বিসিবি। শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামটির দর্শক ধারণক্ষমতা হবে কমপক্ষে ৫০ হাজার। স্টেডিয়ামটির সঙ্গে তৈরি করা হবে ইনডোর একাডেমি, সুইমিংপুল এবং জিমনেশিয়াম। সঙ্গে একটি পাঁচতারকা হোটেল তৈরির পরিকল্পনাও রয়েছে।

আসন্ন বিপিএল নিয়ে গতকাল আগ্রহী পৃষ্ঠপোষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসেছিল বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল। বিসিবি কার্যালয়ে বিকেলে সভা শেষে নতুন স্টেডিয়ামের নির্মাণকাজ প্রসঙ্গে মাহবুব আনাম বলেন, ‘শেখ হাসিনা আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়াম নির্মাণে আমরা আর্কিটেক্ট ফার্ম নিয়োগের ব্যাপারে দরপত্র আহ্বান করেছি। প্রায় দুই ডজনের বেশি দরপত্র পড়েছে। আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন অনেক আর্কিটেক্ট ফার্ম আগ্রহ প্রকাশ করেছে। সেটাই আমাদের জন্য আশার একটা দিক। যারা বিখ্যাত স্টেডিয়াম বানিয়েছে, সে ধরনের মানসম্পন্ন কোম্পানিগুলো এখানে বিট করেছে।’

প্রকল্প বাস্তবায়ন কমিটির আহ্বায়ক আরো বলেন, ‘বিশ্বের প্রথম সারির আর্কিটেক্ট প্রতিষ্ঠানগুলো আগ্রহ দেখিয়েছে। আমি মনে করি, প্রধানমন্ত্রীর নামে যে স্টেডিয়াম হতে যাচ্ছে, তা আন্তর্জাতিক মানের হবে এবং এশিয়া উপমহাদেশের শ্রেষ্ঠ স্টেডিয়াম হিসেবে স্বীকৃতি লাভ করবে।’

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*